কৈটোলা-তারাপুর সংযোগ সড়কে ভূমি ধ্বস

0
394

পাবনার কণ্ঠ ডটকম: 

পাবনার বেড়া উপজেলার তারাপুর-কৈটোলা সংযোগ সড়কে (কাকেশ্বরী নদীতে) ভূমি ধ্বস হয়েছে। এতে পাকা সড়ক ধ্বসে যাচ্ছে । জনগণ উৎকণ্ঠায় যাতায়াত করছে।  যাতায়াত ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হওয়ার পথে। আকবর সরকার এবং সন্তেস মোল্লার বাড়ি ভাঙনের মুখে রয়েছে। এলাকাবাসী জানান, পানির ঝণার কারণে সড়কের ভূমি ধ্বস হচ্ছে। প্রতিবছর এ সড়কে ভাঙন ধরে। এবার একটু বেশি ভাংছে। গতবছর বেড়ার এক ঠিকাদার রাস্তাটির পাশে পাথরের বলক বসিয়ে ঢালাই কাজ করেছে । এক বছর হওয়ার আগেই সড়কের পাশে ভাংন ধরছে । ভারি মালবাহী গাড়ি যাতায়াত করতে পারছে না। ওই সড়ক দিয়ে কুশিয়ারা, বাগজান শহীদনগর হয়ে মানুষ কাশিনাথপুর পাবনা যায়। শিক্ষার্থীসহ প্রতিদিন প্রায় ৫০ হাজার মানুষ যাতায়াত করে। কৈটোলা এবং চাকলা ইউনিয়নের দুটি অংশেই ভূমি ধ্বস হচ্ছে । এলাকাবাসী ভূমি ধ্বসে ক্ষতিগ্রস্ত সড়কটির দ্রুত সংস্কার চায়। এলাকাবাসীর দাবি কৈটোলা -তারাপুর গ্রা‌মের প্রবেশ প‌থ এটি। সড়কটি নদীর নিচে থেকে উপর পর্যন্ত পাথর দিয়ে ঢালাই করে দিলে ভূমি ধ্বস হবে না। রাস্তা সহজে ভাঙবে না। কয়েকটি বাড়ি রক্ষা পাবে।  মানুষ সাচ্ছ‌ন্দে গাড়ি নিয়ে চলাচল কর‌তে পার‌বে। মানুষ‌কে সাচ্ছ‌ন্দে চলাচল করার সু‌যোগ ক‌রে দেওয়ার জ‌ন্যে স্থানীয় সংসদ সদস‌্য এড.শামসুল হক টুকু , চেয়ারম্যান সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপ‌ক্ষকে সড়কটি মেরামতের জন্য দৃ‌ষ্টি আর্কষণ করেছে।

এব্যাপার বৃহস্পতিবার ( ২৬ নভেম্বর)  কৈটোলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শওকত ওসমান মোল্লার কাছে জানতে চাইলে প্রথমে তিনি কৈটোলা -তারাপুর সংযোগ সড়কে ভূমি ধ্বসের কথা অস্বীকার করেন। শওকত চেয়ারম্যান পাবনার কণ্ঠ ডটকমকে বলেন ,ওটা কৈটোলার সীমা  না। ওটা চাকলার মধ্যে পড়েছে। পাবনার কণ্ঠ ডটকমের প্রকাশক চেয়ারম্যানকে বলেন ওই এলাকার লোক তো আপনাকে ভোট দেয়। তখন চেয়ারম্যান উত্তেজিত হয়ে বলে আপনে জানান ভূমি ধ্বস হচ্ছে। আপনি আসেন দেখি কোথায় ভূমি ধ্বস হচ্ছে। তখন পাবনার কণ্ঠ ডটকমের প্রকাশক বলেন আমি কৈটোলা কুটিশ্বর আছি আপনে আসেন তখন চেয়ারম্যান শান্ত হয়ে বলেন, কৈটোলা ইউনিয়ন পরিষদের অর্থ নেই। প্রকল্প আসলে রাস্তাটি সংস্কার করা হবে।

চাকলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফারুক হোসেন পাবনার কণ্ঠ ডটকমকে বলেন, আমি লিভার সমস্যায় ঢাকা ইবনে সিনা হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছি। তারাপুর চাকলা ইউনিয়নের যে অংশে ভূমি ধ্বস হচ্ছে তা গ্রমীণ সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প অথবা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশেষ বরাদ্দের মাধ্যমে তা সংস্কার করতে পারে। আমি বিষয়টা নিয়ে কথা বলব উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে ।

বেড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসিফ আনাম সিদ্দিকী পাবনার কণ্ঠ ডটকমকে বলেন, আমি বিষয়টা উপজেলা এলজিইডি ইঞ্জিনিয়ারকে জানাচ্ছি। সড়কটির ভূমি ধ্বস রোধে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলবো।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here