রূপপুর পৃথক ট্যাঙ্ক পাঠিয়েছে রাশিয়া

0
92

নিজস্ব প্রতিবেদক:

পাবনার রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের দ্বিতীয় ইউনিটের আদ্রতা পৃথকীকরণ রিহিটার (এমএসআর ১২০০) এর জন্যে পৃথক ট্যাঙ্ক প্রস্তুত করে পাঠিয়েছে রাশিয়ার জিও পোডলস্ক জেএসসি (রোসাটমের যন্ত্র প্রস্তুতকারী শাখা জেএসসি এটোমএনার্গোম্যাস)। রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় পারমাণবিক সংস্থার (রোসাটম) গণমাধ্যম শাখা মঙ্গলবার (২৫ মে) বিকেলে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে।

পৃথক ট্যাঙ্কটি এমনভাবে নকশা করা হয়েছে, যেনো এটি এমএসআর-এ আলাদা করা আদ্রতাকে সংগ্রহ করতে পারে। আনুভুমিক এই সিলিন্ডার আকৃতির যন্ত্র যার মধ্যে একটি বডি, ম্যানহোল, ইনলেট এবং ডিসচার্জ পাইপ থাকে। এই যন্ত্রটির বন্ধ করার অংশ ও আভ্যন্তরীণ ভাগগুলো পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ইউনিটে বিভিন্ন মাত্রার পৃথকীকরণ নিশ্চিত করে। এই যন্ত্রটির ওজন ৪১ টন এবং এর আয়ুষ্কাল ৫০ বছর।
এই যন্ত্রটির নকশা প্রণয়ন করেছে জিও পোডলস্ক জেএসসি এর পারমানবিক প্রকৌশল বিভাগের প্লান্ট বিশেষজ্ঞগণ। এছাড়াও এই বিশেষজ্ঞরা যন্ত্রাংশ সমূহের প্রস্তুতকরণ সংক্রান্ত নকশাও সরবরাহ করেন। ইতোপূর্বে এই প্লান্টে নভোভোরোনেঝস্কায়া, লেনিংরাদস্কায়া এবং বেলারুশ এনপিপি ২টি ইউনিটের জন্যে একই ধরণের যন্ত্রাংশ প্রস্তুত করেছে।

জে এস সি এটোমএনারগোম্যাস রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের রিয়্যাক্টর কম্পার্টমেন্ট, টার্বাইন হলের একটি বড় অংশ এবং ভিভিইআর-১২০০ রিয়্যাক্টর সরবরাহ করবে। কোম্পানিটি রিয়্যাক্টর, স্টিম জেনারেটর, পাম্প, এবং হিট এক্সচেঞ্জিং যন্ত্রপাতি প্রস্তুত করছে।

প্রসঙ্গত, রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নকশা ও বাস্তবায়ন রাশিয়ান ডিজাইন অনুযায়ী হচ্ছে। এই কেন্দ্রে ২টি বিদ্যুৎ ইউনিটে ভিভিইআর থ্রি প্লাস রিয়াক্টর থাকবে এবং প্রত্যেকটি ১২শ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ প্রস্তুত করবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here